যে কোন‌ওদিন ভেঙে পড়তে পারে এই গুরুত্বপূর্ণ সেতু

কোচবিহার: ভেটাগুড়ি এলাকা দিয়ে বয়ে গিয়েছে ধারলা নদী। বছরের অন্যান্য সময়ে এই নদীতে খুব একটা জল থাকে না। তবে বর্ষার মরশুমে রীতিমত ফুলে ওঠে এই নদী। এবারেও একই পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে এই নদীর মধ্যে। আর এরই মাঝে এক নতুন আতঙ্ক দানা বেঁধেছে স্থানীয়দের মধ্যে। নদীর মধ্যে অবস্থিত সেতুটির একেবারেই বেহাল দশা। যেকোনও মুহূর্তে সেতুটি ভেঙে একটি বিপজ্জনক পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া বিস্তীর্ণ এলাকার মানুষের চলাচলের জন্য এই সেতুটিই একমাত্র ভরসা।

একপ্রকার বাধ্য হয়ে এই বিপজ্জনক সেতুর উপর দিয়ে চলাচল করছেন স্থানীয়রা। এই প্রসঙ্গে টোটো চালক শাহজাহান মিঁয়া বলেন, এই সেতুটির একেবারেই বেহাল দশা। একটি বড় গাড়ি যদি ওঠে, তবে যে কোনও মুহূর্তে ভেঙে পড়তে পারে। আর তখন বিস্তীর্ণ এলাকার মানুষদের অসুবিধার সম্মুখীন হতে হবে। আর এই সময় যদি সেতুটি ভাঙে তবে বেড়ে ওঠা নদীর জলে অনেকটাই সমস্যায় পড়তে হবে সকলকে। সেতু সংস্কারের বিষয় স্থানীয় প্রশাসনকে জানানো হলেও তারা কোন‌ওরকম উদ্যোগ নেয়নি বলে তিনি অনুযোগ করেন।

আরও পড়ুন: জল যন্ত্রণায় স্কুলছুট ছেলেমেয়েরা, অতিরিক্ত পোশাক নিয়ে বেরোতে হয় রোজগেরেদের

স্থানীয় বাসিন্দা রফিকুল মিঁয়া জানান, এই সমস্যা বহুদিনের। ফলে অস্বস্তি ক্রমশ বেড়েই চলেছে স্থানীয় মানুষদের। সমস্যা সমাধানে কোন‌ও প্রকার উদ্যোগ গ্রহণ করছে না পঞ্চায়েত। সেতু ভেঙে গেলে যাতায়াত বন্ধ হয়ে যাবে। তখন দুই পাড়ের মানুষকে চলাচলের ক্ষেত্রে প্রবল অসুবিধার সম্মুখীন হতে হবে। এর ফলে পড়ুয়াদের স্কুল কলেজে যাওয়া পর্যন্ত বন্ধ হয়ে যাবে।

তবে গোটা বিষয়টি নিয়ে এখনো পর্যন্ত কোনও প্রকার উদ্যোগ গ্রহণ করেনি পঞ্চায়েত কর্মকর্তারা। এই বিষয়টি নিয়ে তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে, তাঁরা বিষয়টি নিয়ে কোন‌ও প্রকার মন্তব্য করবেন না বলে জানান।

সার্থক পণ্ডিত

2024-07-10T08:23:19Z dg43tfdfdgfd